fbpx
সোমবার, ৩০ নভেম্বর ২০২০, ০৮:১৮ অপরাহ্ন

নিজের অজান্তেই যেভাবে ৩ খানের ভাগ্য বদলে দেন আমির!

অনলাইন
  • আপডেট টাইমঃ শুক্রবার, ১৩ নভেম্বর, ২০২০
  • ১৬ বার পঠিত
NAN TV

যেকোনও সাফল্যের পিছনেই রয়েছে কঠোর পরিশ্রম। অথচ অনেক সময় ভাগ্য এমন খেলা দেখায়, যে কঠোর পরিশ্রমের আগেই সাফল্য চলে আসে।

বলিউডে ৩ খানের ক্ষেত্রে অনেকটা সেটাই হয়েছে। নিজের অজান্তেই বলিউডের ৩ খানের ভাগ্যের চাকা ঘুরিয়ে দিয়েছেন আরেক খান।সেই ৩ খান হলেন শাহরুখ, সালমান এবং সাইফ। তাদের ভাগ্যের চাকা যিনি ঘুরিয়ে দিয়েছিলেন তিনি আমির খান। কখন এই ৩ খানকে সুপারহিট করে তুলেছিলেন আমির খান? কেন করেছিলেন? কীভাবে করেছিলেন?

প্রথমেই শাহরুখ খান। টেলিভিশনে আত্মপ্রকাশ শাহরুখের। ১৯৯১ সালে মায়ের মৃত্যুর পর তিনি মুম্বাই চলে আসেন। মুম্বাইয়ে এসেই পরপর ৪টি ফিল্মে সই করে ফেলেন। প্রথম থেকেই অবশ্য দর্শকরা শাহরুখকে পছন্দ করতে শুরু করেছিলেন।

কিন্তু ১৯৯৩ সালে ১টি ছবি তার ভাগ্য পুরোপুরি বদলে দেয়। ‘ডর’। সেই ছবিতে ভিলেন হয়েছিলেন শাহরুখ। এখানেই আমিরের প্রতি কৃতজ্ঞ থাকার কথা শাহরুখের।

কারণ ‘ডর’ ছবিতে অভিনয় করার কথা ছিল আমিরের। কিন্তু চরিত্রটি পছন্দ হয়নি তার। আমিরের জায়গায় ওই ফিল্মে শাহরুখকে নেন পরিচালক। তাকে ভীষণ পছন্দ করেছিলেন দর্শকেরা। সুপারহিট হয় ছবিটি।

১৯৯৪-এর সুপারহিট ফিল্ম ‘হাম আপকে হ্যায় কৌন’। মাধুরী দীক্ষিত এবং সালমানের রসায়ন পছন্দ করেছিলেন দর্শকেরা। তবে এর আগে সালমানের ভাগ্য খুব একটা ভাল যাচ্ছিল না। পরপর ৫টি ফিল্ম বক্স অফিসে মুখ থুবড়ে পড়েছিল।

এই ছবিতেও অভিনয় করার কথা ছিল আমিরের। পরিচালকের থেকে স্ক্রিপ্ট শোনার পর পছন্দ হয়নি তার। আমিরের মনে হয়েছিল, নায়িকার চরিত্র অনেক বেশি প্রভাবশালী। তিনি সরে এসেছিলেন। সেই ছবির হাত ধরেই উঠে দাঁড়ান সালমান।

তবে নিজের অজান্তে আমির সবচেয়ে বেশি উপকার করেছেন সাইফ আলি খানের। ছবির নাম ‘ওমকারা’। সাল ২০০৬।

উইলিয়াম শেক্সপিয়রের ‘ওথেলো’-র কাহিনি অবলম্বনে তৈরি ওই ছবির প্রস্তাব পরিচালককে প্রথমে কিন্তু আমিরই দেন। পরিচালক বিশাল ভরদ্বাজ স্ক্রিপ্ট তৈরি করে আমিরকে শোনান। স্ক্রিপ্ট আমিরের এতটাই পছন্দ হয়েছিল, যে ছবিতে অভিনয়ের পাশাপাশি তিনি সহ-প্রযোজনারও দায়িত্ব নিয়ে নেন।

সেখানেই গোল বাধে। ছবির অনেক কিছুই আমির নিজের পছন্দমতো বদলাতে শুরু করেন। পরিচালক যাদের যে চরিত্রে ভেবেছিলেন, তা আমিরের মন মতো হচ্ছিল না। বারবার পরিচালকের সঙ্গে এই নিয়ে তার মতবিরোধ হতে থাকে এবং অবশেষে ছবি থেকেই সরে দাঁড়ান আমির।

২০০৬ সালে ‘ওমকারা’ মুক্তি পায়। আমিরের বদলে এতে ‘ল্যাংড়া ত্যাগী’র চরিত্রে সুযোগ পান সাইফ। বাকিটা ইতিহাস। 

নিউজটি শেয়ার করুন

Comments are closed.

এ জাতীয় আরো খবর...

এনএএন টিভি লাইভ

%d bloggers like this: