fbpx
শুক্রবার, ০৩ ডিসেম্বর ২০২১, ০৬:৪৩ অপরাহ্ন

করিম বেঞ্জেমার এক বছররের কারাদণ্ড

অনলাইন
  • আপডেট টাইমঃ বৃহস্পতিবার, ২৫ নভেম্বর, ২০২১
  • ১৮ বার পঠিত

সতীর্থ ভালবুয়েনা এনেছিলেন ব্ল্যাকমেইলিংয়ের অভিযোগ। অবশেষে দোষী সাব্যস্ত হলেন ফ্রান্স ও রিয়াল মাদ্রিদের স্ট্রাইকার করিম বেঞ্জেমা। কুখ্যাত ‘সেক্সটেপ’‌ কাণ্ডে আদালত বেঞ্জেমাকে এক বছর জেলের সাজার পাশাপাশি ৭৫ হাজার ইউরো জরিমানা করেছেন।

২০১৫ সালে আর্মেনিয়ার বিরদ্ধে এক প্রীতি ম্যাচের আগেই বেঞ্জেমার বিরুদ্ধে তাকে ব্ল্যাকমেইল করার অভিযোগ আনেন ভালবুয়েনা। তবে বেঞ্জেমা এই অভিযোগ সম্পূর্ণ উড়িয়ে দিয়ে জানান, তিনি নিজের সতীর্থকে সাহায্য করেছিলেন শুধু। গোটা ঘটনা নিয়ে সতর্ক থাকতে বলেছিলেন তিনি। ওই ঘটনার পরেই ফ্রান্স দল থেকে বাদ পড়েন বেঞ্জেমা। ২০১৬ ইউরো কাপ ও ২০১৮ বিশ্বকাপ তিনি খেলতে পারেননি। তবে ২০২০ ইউরো কাপে তিনি দলে ফেরেন। যা অনুষ্ঠিত হয় চলতি বছর। গত ২০ অক্টোবর এই মামলার শুনানি শুরু হয়। চ্যাম্পিয়ন্স লিগের ম্যাচ নিয়ে বেঞ্জেমা ব্যস্ত থাকায় এদিন কোর্টে উপস্থিত না থাকলেও ভালবুয়েনা উপস্থিত ছিলেন। অবশেষে আদালত বেঞ্জেমাকেই দোষী সাব্যস্ত করেন। এই মামলায় দোষী প্রমাণিত হওয়ায় বেঞ্জেমার পাঁচ বছর পর্যন্ত জেল হওয়ার সম্ভাবনা থাকলেও তাকে এক বছরের জন্যই জেলের সাজা শোনায় আদালত। 

কিন্তু এই রায় বেঞ্জেমার উকিল একেবারেই মানতে রাজি নন। উচ্চ আদালতে আপিল করার কথা তিনি জানিয়েছেন। বেঞ্জেমার উকিলের তরফ থেকে এই রায়ের পর জানানো হয়, আমরা এই রায়ে সকলেই সম্পূর্ণভাবে হতবাক। এর বিরুদ্ধে আপিল করাটা জরুরি। এই আপিল করলে নিশ্চয়ই বেঞ্জেমা নির্দোষ প্রমাণিত হবে। 

এবার ব্যালন ডি’‌অর পাওয়ার অন্যতম দাবিদার করিম বেঞ্জেমা। যদিও আদালতের রায়ের আগে ফরাসি ফুটবল সংস্থার প্রেসিডেন্ট নোয়েল লি গ্রেট জানান, দোষী প্রমাণিত হলেও বেঞ্জেমার জাতীয় দলে খেলার ক্ষেত্রে বাধা থাকবে না।

নিউজটি শেয়ার করুন

Comments are closed.

এ জাতীয় আরো খবর...

এনএএন টিভি লাইভ

%d bloggers like this: